• রোববার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ৯ ১৪২৯

  • || ২৭ সফর ১৪৪৪

পিরোজপুর সংবাদ

অ্যান্টিবায়োটিক ছাড়াই যেভাবে সারাবেন প্রস্রাবে ইনফেকশন

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৭ আগস্ট ২০২২  

মূত্রনালির সংক্রমণে অনেক নারীই ভোগেন। নারীদের মধ্যে সবচেয়ে সাধারণ ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণগুলোর মধ্যে এটি একটি। জানা যায়, প্রায় ৫০-৬০ শতাংশ নারীরা তাদের জীবদ্দশায় ইউটিআই অনুভব করবেন। তবে শুধু নারী নয় পুরুষরাও এই সমস্যায় ভুগতে পারেন।

যদিও প্রস্রাবে সংক্রমণের সমস্যা জীবন-হুমকিপূর্ণ অবস্থা নয়, তবে গুরুতর সংক্রমণের ফলে শারীরিক নানা সমস্যা দেখা দেয় যেমন- বারবার প্রস্রাবের তাগিদ, প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া, রং বদল ও তীব্র-গন্ধযুক্ত প্রস্রাব, পেটে ব্যথা ইত্যাদি লক্ষণ প্রকাশ পায়।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই চিকিৎসকরা ইউটিআই রোগীর চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিক গ্রহণের পরামর্শ দেন। আসলে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ অণুজীবের বৃদ্ধিকে বাঁধা দেয়।

এক্ষেত্রে চিকিৎসক রোগীকে ৫ দিনের অ্যান্টিবায়োটিক কোর্স চালাতে বলেন। তারপরও সংক্রমণ না সারলে কোর্স আরও বাড়তে পারে। পুরুষদের ক্ষেত্রে অ্যান্টিবায়োটিকগুলো দীর্ঘ সময়ের জন্য নির্ধারিত হয়।

যাদের মূত্রনালীর গুরুতর সংক্রমণ রয়েছে তাদের জন্য অ্যান্টিবায়োটিক হলো সর্বোত্তম চিকিৎসার বিকল্প। তবে আপনার উপসর্গগুলো হালকা হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন ও জিজ্ঞাসা করুন অ্যান্টিবায়োটিক ছাড়াই বাড়িতে এর চিকিৎসা করতে পারেন কি না।

যদিও অ্যান্টিবায়োটিকগুলো ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের চিকিৎসায় সাহায্য করে, তবে তা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও সৃষ্টি করে। ইউএস সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) অনুসারে, অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলোর মধ্যে ফুসকুড়ি, মাথা ঘোরা, বমি বমি ভাব, ডায়রিয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

আপনি যদি ঘরোয়া উপায়ে ইউটিআই সারাতে চান তাহলে বেশ কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। জেনে নিন ঘরোয়া উপায়ে কীভাবে সারাবেন প্রস্রাবে সংক্রমণ-

>> ইউটিআইসহ সব ধরনের স্বাস্থ্য সমস্যার মূল সমাধান হলো পানি। হাইড্রেটেড থাকার মাধ্যমে ইউটিআই এর চিকিৎসা করতে পারে। কারণ পানি পান করার মাধ্যমে প্রস্রাবকে পাতলা করে দেয়, ফলে সব ব্যাকটেরিয়া বের হয়ে যায় মূত্রের মাধ্যমে।

>> ক্র্যানবেরি ইউটিআই প্রতিরোধে সাহায্য করতে পারে। কিছু গবেষণায় ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে, তাজা ক্র্যানবেরি জুস ইউটিআইয়ের ঝুঁকি কমায়। এর কারণ হলো ক্র্যানবেরিতে প্রোঅ্যান্থোসায়ানিডিনস থাকে, যা মূত্রনালির আস্তরণে ব্যাকটেরিয়া জমতে বাধা দেয়।

>> প্রোবায়োটিক হলো অণুজীব যা হজমের স্বাস্থ্য ও অনাক্রম্যতার উন্নতি ঘটায়। প্রোবায়োটিকগুলো খারাপ ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে ভালো ব্যাকটেরিয়া দিয়ে। তাই এ সময় প্রোবায়োটিক গ্রহণ করুন।

>> ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতা প্রতিরোধ, রক্তচাপের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ ও রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা কমানো থেকে শুরু করে ভিটামিন সি এর অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা আছে।

ঠিক একইভাবে ইউটিআই সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া দূর করতে সাহায্য করে ভিটামিন সি। কমলালেবু, জাম্বুরা, কিউই, লেবু এ সময় নিয়মিত খেতে হবে।

>> ইউটিআইয়ে যারা ভুগছেন তারা কখনো ভুলেও প্রস্রাব বেশিক্ষণ ধরে রাখবেন না। প্রস্রাব করার সময়ও প্রস্রাব ধরে রাখা ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধিকে বাড়িয়ে তুলতে পারে। তাই প্রস্রাবের তাগিদ অনুভব করলেই মূত্রাশয় খালি করা জরুরি।