• শুক্রবার   ৩০ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৪ ১৪২৮

  • || ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

বিএনপির নেতৃত্বে জোট, আলোচনা আর গুঞ্জনেই সীমাবদ্ধ

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৮ জুলাই ২০২১  

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির নেতৃত্বে সরকারবিরোধী বৃহত্তর জোট গঠনের বিষয়টি আলোচনা ও গুঞ্জনেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্ব ও সমন্বয়হীনতার কারণে কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি সবাইকে রাজি করাতে পারলে তাদের নেতৃত্বে বৃহত্তর ঐক্য গড়ে উঠতে পারে। কিন্তু বিএনপি অসফল হলে বাদ বাকি দলগুলো সেই সুযোগ নিয়ে বিকল্প একটি জোট গঠন করতে পারে। আর জোট গঠনে বিএনপির তুলনায় অপেক্ষাকৃত ছোট ওই দলগুলোর মধ্যেই ইচ্ছা-আকাঙ্ক্ষা আপাতত বেশি রয়েছে।

ছোট ওই দলগুলোর নেতারা বলছেন, বিএনপি শেষ পর্যন্ত কী করে তার ঠিক নেই। দলের নেতৃত্ব নিয়েও তাদের মধ্যে সংশয় রয়েছে। তারেক রহমান লন্ডন থেকে নেতৃত্ব দিলেও ঢাকায় অবস্থানরত খালেদা জিয়ার এখনো বিএনপিতে প্রভাব আছে। আবার দলের শীর্ষ নেতারা ওই দুজনের নির্দেশনার সঙ্গে সমন্বয় করতে পারছে না। এ পরিস্থিতিতে লেজেগোবরে অবস্থায় রয়েছে বিএনপি।

সূত্র জানায়, সংগঠন চললেও ত্রিমুখী এ পরিস্থিতির কারণে বিএনপির রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত গ্রহণে দেরি হচ্ছে। অনেকের মতে, স্থায়ী কমিটির বেশিরভাগ নেতার আগ্রহ সত্ত্বেও জামায়াত প্রশ্নে নিষ্পত্তি এ কারণেই থেমে আছে। 

গত নির্বাচনের আগে বিএনপির নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনে মূল ভূমিকা পালন করেন গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। সরকারবিরোধী আরেকটি জোট গঠনের ব্যাপারে তিনি এখনো তৎপরতা রয়েছেন রাজনৈতিক অঙ্গনে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জোট গঠনে বিএনপি কিছু করছে না। আবার অন্য দলগুলো কিছু করতে পারছে বলে মনে হয় না। বিএনপি এখনো হিসাব-নিকাশ নিয়ে আছে। আর অন্য দলগুলোর আগ্রহ থাকলেও তাদের লোকজন কম। ফলে জোট গঠনের বিষয়টি এখনো অনানুষ্ঠানিক আলোচনার মধ্যেই সীমাবদ্ধ আছে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে আমরা বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলার জন্য কাজ করছি। কিন্তু করোনার কারণে পরিস্থিতি এখন কিছুটা থমকে আছে। 

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ডান, বাম, মধ্য বা উদারপন্থী সবাইকে নিয়ে বিএনপি বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলার পক্ষে। এ বিষয়ে অনানুষ্ঠানিক আলাপ-আলোচনাও চলছে। কিন্তু সেই লক্ষ্যে পৌঁছাতে সময় লাগবে।

বিএনপিসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বিরোধী দলের রাজনীতিতে বর্তমানে দুটি ধারা বিদ্যমান। জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ একটি ধারার নেতারা বিএনপির নেতৃত্বেই বড় ধরনের ঐক্য হোক, সেটি চাইছেন। কিন্তু ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক জামায়াতের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে দেরি হওয়ায় তারা ক্ষুব্ধ। এছাড়া নেতৃত্বের প্রশ্নে তারেক রহমানের বিষয়েও দু-একটি দলের আপত্তি আছে।

ডা. জাফরুল্লাহ সম্প্রতি তারেকের ব্যাপারে কথা বলে তার বিরাগভাজন হয়েছেন। তবে অন্য বিষয়গুলো নিষ্পত্তি হলে তারেকের বিষয়টি শেষ পর্যন্ত অন্য দলগুলো মেনে নেবে বলে বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের অনেক নেতা বিশ্বাস করেন। ফলে এ প্রক্রিয়া কতটুকু সফলতা অর্জন করবে তা নিয়ে সন্দিহান রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা।